যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী পালন

যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী পালন

আজ ১৫ আগস্ট ২০২৩ তারিখ বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহানায়ক, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ৪৮ তম শাহাদত বার্ষিকী। ১৯৭৫ সালের এই দিনে বাঙ্গালি জাতির ইতিহাসে রচিত হয় এক কলঙ্কজনক অধ্যায়, সাধিত হয় এক অপূরণীয় ক্ষতি। এই দিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবারে ঘাতকের নির্মম বুলেটে শাহাদত বরণ করেন। সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুর জেলাতেও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিনটি যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যের সাথে পালিত হয়েছে। মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল, চাঁদপুরের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে হাসপাতাল প্রাঙ্গনে বিনামূল্যে চক্ষু ‍ ‍চিকিৎসা কার্যক্রম, ছানি অপারেশন, ঔষধ ও চশমা বিতরন করা হয়েছে। মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের বহিঃবিভোগে ৩৮৪ জন রোগীকে সেবা প্রদানসহ উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা দি ফ্রেড হলোস ফাউন্ডেশনের সহযোগীতায় ৩৫ জন রোগীকে বিনামূল্যে ঔষধ প্রদান করা হয়েছে।

           

এছাড়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা, অস্ত্রপাচার ও ওষুধ বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার (১৬ আগস্ট) দিনব্যাপী ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্বরে ৫ শতাধিক নারী ও পুরুষকে এমন মানবিক সেবা দেওয়া হয়। এদের মধ্যে বাদ পড়েননি শারীরিক প্রতিবন্ধীরাও। এদিকে, গ্রামের অবহেলিত দরিদ্র বয়স্ক এসব মানুষ এমন মানবিক সেবা পেয়ে দারুণ খুশি হয়েছেন।

ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ ও মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল চাঁদপুর যৌথভাবে এমন মানবিক চিকিৎসা সেবার আয়োজন করেছে। এই জন্য আয়োজনকদের ধন্যবাদ জানান চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগীরা।  অন্যদিকে, চিকিৎসক দলের সদস্য ডা. আনোয়ার হোসেন সৈকত জানান, পরীক্ষা-নীরিক্ষা ছাড়াও প্রয়োজনীয় ওষুধ, চশমা এবং জটিল রোগীদের চোখের ছানি অপারেশন সেবা বিনামূল্যে প্রদান করছি আমরা। শুধু তাই নয়, গ্লুকোমা ও ডায়াবেটিস আছে কি না। তাও পরীক্ষা করা হয় উক্ত চক্ষু চিকৎসা ক্যাম্পে।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম বলেন, জাতির পিতা শোষিত এবং সাধারণ মানুষের জন্য আমৃত্যু সংগ্রাম করেছেন। তাই এই মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এই চিকিৎসা সেবার আয়োজন করা হয়েছে। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসলিমুন নেছা বলেন, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ বরাবরই এমন কিছু কাজ করছে যা সাধারণ মানুষের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই এবারো বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকীতে ব্যাপক আয়োজনে মানুষের শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ চোখের চিকিৎসায় মহতি কাজ করা হয়েছে।

মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ৪৮ জন রোগীর চোখে  বিনাখরচে চোখের লেন্স সংযোজনসহ ছানি অপারেশন করে দৃষ্টিশক্তি পুনোরুদ্ধার করা হয়েছে ও ৮১ জন রোগীকে বিনামূল্যে চশমা প্রদান করা হয়েছে।

নিয়মিত কর্ম্সূচীর পাশাপাশি হাসপাতালটি প্রতিবছর বিশেষ দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা প্রদান করা ছাড়াও চোখের ছানি অপারেশন, চশমা ও ঔষধ প্রদান করে থাকে।

হাসপাতালের বহিঃবিভোগে ৩৮৪ জন রোগীকে সেবা প্রদানসহ উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা দি ফ্রেড হলোস ফাউন্ডেশনের সহযোগীতায় ৩৫ জন রোগীর ছোখে ছানি অপারেশনপূর্বক লেন্স সংযোজন করা হয়েছে।

    This will close in 70 seconds